সাংবাদিক ও ভাষাসৈনিক ছৈয়দ মোস্তফা জামাল যেমন ছিলেন

সোমবার, ১৮/০২/২০১৩

সোহেল মো. ফখরুদ-দীন: ভাষা সৈনিক, প্রচার বিমুখ প্রয়াত সাংবাদিক, সমাজসেবক ছৈয়দ মোস্তফা জামাল ২০০৪ সালের ২২ এপ্রিল আমাদের শোক সাগরে ভাসিয়ে চিরতরে চলে গেলেন। আমি তাহার ৮ম মৃত্যু বার্ষিকীতে রূহের মাগফেরাত কামনা করছি। আল্লাহ যেন তাকে ক্ষমা ও বেহেস্ত নসিব করুন। ঢাকাস্থ চট্টগ্রাম সমিতির প্রাক্তন কর্মকতা ও পটিয়া উপজেলার শোভন দন্ডীর শিক্ষাবিদ ও কবি ওয়ালি  বিস্তারিত

স্মরণ : একজন বিস্মৃত ভাষাসৈনিক ও সাংবাদিক

সোমবার, ১৮/০২/২০১৩

॥ মীযানুল করীম ॥ সত্তরের দশকের মাঝামাঝি। ফেনী কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ভার্সিটিতে ভর্তির ব্যাপারে গিয়েছি চট্টগ্রাম। বন্দরনগরীর কদমমোবারক এলাকায় একজন পরিচিত লোকের ঠিকানায় গিয়ে উঠলাম। পাশেই ঐতিহাসিক কদমমোবারক মসজিদ। একদিন নির্জন দুপুরে দেখি, একজন মোটা গোছের মাঝবয়সী লোক মসজিদের বারান্দায় একাকী বসে কী সব কাগজপত্র দেখছেন মনোযোগ দিয়ে। মানুষটির মুখে চাপদাড়ি, গায়ে সাধারণ  বিস্তারিত

একজন সাংবাদিকের প্রতিকৃতি

সোমবার, ১৮/০২/২০১৩

জাহিদ রেজা নুর সিরাজুদ্দীন হোসেন ছিলেন দৈনিক ইত্তেফাকের কার্যনির্বাহী ও বার্তা সম্পাদক। ইংরেজ আমলের শেষে তার সাংবাদিকতা জীবনের শুরু, পাকিস্তান আমলজুড়ে তিনি ছিলেন সক্রিয়। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার মাত্র ৬ দিন আগে, ১০ ডিসেম্বর পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর এদেশীয় দোসর রাজাকার-আলবদরের একটি দল তাঁকে শান্তিনগরের ভাড়া বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া  বিস্তারিত

মাসুদ নিজামী সার্থক-চিরঞ্জীব

সোমবার, ১৮/০২/২০১৩

শেখ রকিব উদ্দিন আমার পেশাগত সাংবাদিকতাজীবন প্রায় ৫৫ বছরের। এই অর্ধশতাব্দীর সাংবাদিকতাজীবনে দেশ ও বিদেশে এক ডজনের বেশি পত্রিকার সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলাম। দীর্ঘ সাংবাদিকতাজীবনে বহু দেশি-বিদেশি প্রতিভাধর সাংবাদিকের সাহচর্যে যাওয়ার সুযোগ হয়েছে আমার। তাদের মধ্যে মরহুম মাসুদ নিজামী অন্যতম। অধুনালুপ্ত ‘দৈনিক আজাদ’ পত্রিকায় ১৯৬০-এর দশকের শুরুতে আমি সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দিই। তার বেশ সময়  বিস্তারিত

স্মরণ: সাংবাদিক মাসুদ নিজামীর জীবন ও কর্ম

সোমবার, ১৮/০২/২০১৩

এইচ এম জালাল আহমেদ মাসুদ নিজামী ১৯৪৮ সালের ১ জানুয়ারি বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের গোয়ালভাওর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা এস এম ওবায়েদ উল্লাহ ছিলেন স্কুলশিক্ষক। মা মোসাম্মদ মরিয়ম জোহরা (৮৫)। স্ত্রী আফজালা বেগম লুলু ইঞ্জিনিয়ারিং ইউনিভার্সিটি হাইস্কুলের সিনিয়র শিক্ষক। চার ভাই দুই বোনের মধ্যে মাসুদ নিজামী ছিলেন সবার  বিস্তারিত