সম্প্রীতি রক্ষায় সাংবাদিকরা ভূমিকা রাখছে

মঙ্গলবার, ০৭/০৪/২০১৫ @ ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ

:: প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

hill newsরাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় ও উন্নয়নে সাংবাদিকরা ভুমিকা রাখছে। সাংবাদিকরা সঠিক তথ্য পরিবশেন অব্যাহত রাখলে দেশে দূর্নীতি কমে যাবে। অন্যথায় প্রশাসন এক চেটিয়া হয়ে যাবে।’

সাংবাদিকরা নিরেপেক্ষ সংবাদ পরিবেশন না করলে দেশে এতো উন্নয়ন হতো না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের পিছিয়ে পড়া মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে সাংবাদিক সমাজকে আরো দায়িত্বশীল ভুমিকা রাখতে হবে।’

সোমবার পার্বত্য চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন পত্রিকা হিল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান কার্যালয় উদ্বোধন শেষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হিল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন রুবেল, সাপ্তাহিক পার্বত্য কন্ঠের সম্পাদক মোখলেস্-উর রাহমান ভুঁইয়া, দৈনিক রাঙামাটির সম্পাদক আনোয়ার আল হক, রাঙামাটি প্রতিবন্ধি স্কুলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবচার, সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি নন্দন দেব নাথ, রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ-সভাপতি চৌধুরী হারুনুর রশীদ।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন হিল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এর সম্পাদক মোহাম্মদ সোলায়মান। বক্তব্য রাখেন হিল নিউজের সিনিয়র রিপোর্টার চৌধুরী হারুনুর রশীদ, স্টাফ রিপোর্টার আনোয়ার হোসেন।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি আরো বলেন, ‘গণমাধ্যম যত শক্তিশালী হবে গণতন্তন্ত্র তত শক্তিশালী হবে। গণতন্ত্র শক্তিশালী হলে দেশ এগিয়ে যাবে, উন্নয়ন তরান্বিত হবে।’

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা গঠনমূলক পরামর্শ দিয়ে জেলা পরিষদের কার্যক্রমকে আরো এগিয়ে নিতে পারে।’

তিনি হিল নিউজের গঠনমূলক সংবাদের প্রশংসা করে এর কার্যক্রমকে আরো ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দেয়ার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন রুবেল বলেন, ‘রাঙামাটির উন্নয়নের জন্য জেলা পরিষদ ও সাংবাদিক সমাজ একসাথে কাজ করবে। উন্নয়ন ও সম্প্রীতির জন্য আমাদের সকলকে দলমত নির্বিশেষে এক সাথে কাজ করতে হবে।’

রাঙামাটির সাংবাদিকরা আগের চেয়ে এখন অনেক ঐক্যবদ্ধ ও বেশি দায়িত্বশীল বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সাপ্তাহিক পার্বত্য কন্ঠের সম্পাদক মোখলেস উর-রাহমান ভুঁইয়া বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামে যতবারই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার অপচেষ্ঠা হয়েছে তখনিই সাংবাদিকরা ইতিবাচক ভুমিকা নিয়ে সম্প্রীতি রক্ষায় এগিয়ে এসেছে।’

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা ভুল করলে জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সাংবাদিকদের সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা আছে।’

তিনি জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের মানবিক মূল্যবোধ ও দায়িত্বশীলতার সাথে সংবাদ পরিবশেনের আহবান জানান।

দৈনিক রাঙামাটির সম্পাদক আনোয়ার আল হক বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে সাংবাদিকদের ভুমিকা কম নয়। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় পার্বত্য চট্টগ্রামে অন লাইন সংবাদপত্রের ব্যাপক প্রসার হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘হিল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম প্রিন্ট ভার্সন বের করে পার্বত্য চট্টগ্রামে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।’

হিল নিউজের সম্পাদক মোহাম্মদ সোলায়মান বলেন, ‘হিল নিউজ পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয় ও শান্তির পক্ষে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সাধারণ পাঠকের মনে স্থান করে নিয়েছে হিল নিউজ।’

সকল প্রকার ইতিবাচক কার্যক্রমের পাশে হিল নিউজ সাহসি ভুমিকা নিয়ে থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন বলেন, ‘প্রধান কার্যালয় উদ্বোধনের মাধ্যমে হিল নিউজ আরো একধাপ এগিয়ে গেছে।’

খুব শিগগিরই তিন পার্বত্য জেলায় হিল নিউজের কার্যালয় স্থাপন করা হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

আলোচনা সভার আগে রাঙামাটি শহরের প্রাণ কেন্দ্র বনরূপার উত্তরা শপিং সেন্টারে হিল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান কার্যালয় ফিতা কেটে উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা।