সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন ৪ এপ্রিল

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০১৫

:: সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ::

sirajganj 2-04-2015আগামী ৪এপ্রিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। সিরাজগঞ্জে কর্মরত সাংবাদিকদের প্রধান এ সংগঠনটির নির্বাচনকে ঘিরে প্রচার-প্রচারনা ব্যাপক জমে উঠেছে। প্রার্থীদের ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে প্রেসক্লাব চত্বর।

১৯৭৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় সিরাজগঞ্জে কর্মরত সাংবাদিকদের প্রধান সংগঠন সিরাজগঞ্জ প্রেসক্লাব। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে গত প্রায় ১০ বছর ধরে সম্পূর্ণ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে পরিচালিত হচ্ছে এ সংগঠনটি। এর ফলে সিরাজগঞ্জের সাংবাদিকদের পেশাগত উৎকর্ষতা বৃদ্ধি ও সাংগঠনিক ভিত শক্তিশালী হয়েছে। পাশাপাশি জীর্ণ শীর্ণ পুরাতন ভবন ছেড়ে আধুনিক ভবনও গড়ে উঠেছে এ সংগঠনটির।

প্রেসক্লাব সূত্রে জানা যায়, ৪৮ সদস্যের এ সংগঠনটির আজীবন সদস্য প্রবীন ৩ সাংবাদিক ব্যতিত বাকী ৪৫ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এবারের নির্বাচনে ১৩টি পদের মধ্যে ২ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ায় ১১ টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ১১ পদের বিপরীতে ২১ জন প্রার্থী নেমেছেন ভোটযুদ্ধে।

সভাপতি পদে দৈনিক যুগের কথার সম্পাদক, দেশটিভি’র জেলা প্রতিনিধি ও ভোরের কাগজের স্টাফ রিপোর্টার এবং পর পর দুবার নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক হেলাল উদ্দিনের প্রতিদ্বন্দী হিসেবে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন দৈনিক করতোয়ার ব্যুরো প্রধান ও দৈনিক আজকের সিরাজগঞ্জ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ও সাবেক সহ-সভাপতি হেলাল আহম্মেদ।

গত ১৬ মার্চ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১৮ ও ১৯ মার্চ সকাল ১০টা থেকে ২টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র সংগ্রহ, ২০ মার্চ জমা, ২১ মার্চ বাছাই, আপত্তি গ্রহণ ও নিস্পত্তি শেষে ২২ মার্চ সকাল ১০টায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের খসড়া তালিকা এবং ২৫ মার্চ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়।

আগামী ৪ এপ্রিল সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে প্রেসক্লাব ভবনের দ্বিতীয় তলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে রয়েছেন এ্যাড: কল্যাণ সাহা। অন্যান্য সদস্যরা হলেন গাজী শফিকুল ইসলাম ও জাহাঙ্গীর আলম রতন।