চুয়েটে ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৫

:: মোঃ হাবিবুর রহমান, রাউজান (চট্টগ্রাম) ::

kolom02চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাকের প্রতিনিধি রাকিবুল হাসানের উপর হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে এক ছাত্রলীগ নেতাকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে অপর এক নেতাকে আবাসিক হল এলাকায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

এরা হলেন- চুয়েট ছাত্রলীগ শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক আশরাফ উন নাঈম ও মোসলেহ উদ্দিন।

মঙ্গলবার বিকালে চুয়েট ছাত্রকল্যাণ পরিচালক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে আশরাফ উন নাঈমকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম থেকে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে মোসলেহ উদ্দিনকে আবাসিক হল এলাকায় প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া গত বছরের ১৬ জুন রাতে চুয়েট ক্যাম্পাসে সৃষ্ট মারামারির ঘটনায় সম্পৃক্ততার জন্য নাঈমকে পুনরায় আবাসিক হল থেকে আজীবন বহিষ্কার এবং পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। যদিও বিভিন্ন সময় ক্যাম্পাসের শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে নাঈমের উপর আবাসিক হল থেকে আজীবন বহিষ্কারাদেশ বলবৎ ছিল।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারি দিবাগত রাতে চুয়েট সাংবাদিক সমিতির সভাপতি রাকিবুলকে শহীদ তারেক হুদা হলের ৩২০ নম্বর কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় নাঈম। এমসয় ৪ জানুয়ারি একটি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত এক সংবাদের জন্য মোসলেহ উদ্দিনের নাম পরে আসার কারণে তাকে মারধর করে নাঈম।