রবিবার, ২১শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৬ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পণ্ডিত-গুণীজন ব্যক্তিরা সমাজের পথ প্রদর্শক : চবি ভিসি

বুধবার, অক্টোবর ৩, ২০১৮

চট্টগ্রাম: পণ্ডিত-গুণীজন ব্যক্তিরা সমাজের পথ প্রদর্শক, তাদের উর্বর চিন্তা-চেতনায় জাতি দিক নির্দেশনা খুঁজে পায় বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। বুধবার সকালে চবি অর্থনীতি বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকবৃন্দের বিদায় সংবর্ধনা উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অবসরপ্রাপ্ত সংবর্ধিত শিক্ষকবৃন্দ হলেন- প্রফেসর ড. আবুল কালাম আযাদ, প্রফেসর ড. জ্যোতি প্রকাশ দত্ত ও প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবদুল মান্নান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার ও সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদ।

উপাচার্য বলেন, যে কয়টি বিভাগ নিয়ে ১৯৬৬ সালে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল এর মধ্যে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের অধীন অর্থনীতি বিভাগ অন্যতম। এ বিভাগে অনেক প্রতিথযশা, জ্ঞানী, মেধাবী ও গুণী পণ্ডিত শিক্ষক অধ্যাপনা করে গেছেন এবং বর্তমানেও তাদের উত্তরসূরীরা নিরবিচ্ছিন্নভাবে পাঠদান করে আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদন করে যাচ্ছেন। তাদের সুদক্ষ জ্ঞান-গবেষণা ও জ্ঞান সৃজনের ফলে এ বিভাগ এ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজস্ব স্বকীয়তায় সমুজ্জ্বল।

উপাচার্য আরও বলেন, আজকে আমরা যাদেরকে বিদায় দিচ্ছি, তারা আমাদের অত্যন্ত সুহৃদ ও পরম আত্মীয়। দীর্ঘসময় তারা তাদের মেধা, প্রজ্ঞা, অভিজ্ঞতা ও দূরদর্শিতা দিয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক-প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড এবং মানবসম্পদ উৎপাদনে অসামান্য অবদান রেখেছেন। তাদের হাতে গড়া ছাত্ররা আজ দেশ-বিদেশে সুপ্রতিষ্ঠিত।

চবি অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. নিতাই চন্দ্র নাগের সভাপতিত্বে এবং উক্ত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মদ মামুন মোরশেদ ভূইয়া ও ঝুলন ধরের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিভাগের প্রফেসর ড. ইরশাদ কামাল খান, প্রফেসর ড. মো. আলী আশরাফ এবং অনুষ্ঠান আয়োজন কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল হোসাইন।

অনুষ্ঠানে বিভাগের প্রয়াত শিক্ষক ড. এ.জে.এম. ফারুকের মৃত্যুতে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উক্ত বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ