না ফেরার দেশে সাংবাদিক লিনা

সোমবার, মার্চ ১৮, ২০১৩

প্রেসবার্তাডটকম প্রতিবেদন:
linaনাহিদ জাহান লিনা। একজন সাংবাদিক। একজন মা। একটি ভালো মানুষ। বন্ধুরা তেমনটাই বলে। লিনা স্তন ক্যান্সারে ভুগছিলেন। লিনাকে বাঁচানো গেলো না। বন্ধুরা কম চেষ্টা করেনি। চেষ্টার কম ছিলো না চিকিৎসকদেরও। কিন্তু তিন বছর যুদ্ধ করে লিনা ঠিকই চলে গেলো না ফেরার দেশে। বন্ধু, ভক্তদের কাঁদিয়ে।
জীবনের ৪০টি বছর পার করে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে রোববার দিবাগত রাত ১টায় শেষ নিশ্বাসটি ফেলেন লিনা। তার ছয় বছরের আনা হারালো মমতাময়ী মাকে।

একটি বর্ণময় সাংবাদিকতার ক্যারিয়ার ছিলো লিনার। একুশে টেলিভিশন, এটিএন বাংলা, সিএসবি হয়ে সবশেষ এনটিভি’র কান্ট্রিডেস্কের ইনচার্জ ছিলেন। বন্ধুরা, সহকর্মীরা তাকে বাঁচাতে, চিকিৎসা নিশ্চিত করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছিলো। সহায়তা করার আহ্বান জানিয়ে ফেসবুক পেজ ওপেন করা হয়েছিলো। ব্যাপক লেখা হয়েছিল ব্লগে। তাতে কিছু তহবিলও সংগ্রহ হয়তো হয়েছিলো। কিন্তু বাঁচানো যায়নি লিনাকে। ছাত্রজীবনে বামপন্থী রাজনীতি করেছে লিনা, যুক্ত থেকেছে সব প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সঙ্গে।

লিনারা ঢাকার মিরপুরের স্থায়ী বাসিন্দা। রাতেই তার মরদেহ বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সোমবারই তার দাফন হবে।