সব সরকারই গণমাধ্যমকে রুদ্ধ করতে চায়

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৩, ২০১৩

:: প্রেসবার্তাডটকম প্রতিবেদন ::

press-club-musa(৩ অক্টোবর ২০১৩)- সব সরকারই ক্ষমতায টিকে থাকার পথে গণমাধ্যমকে প্রতিবন্ধক মনে করে। তাই তারা গণমাধ্যমকে রুদ্ধ করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন প্রবীণ সাংবাদিক এবিএম মূসা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে আয়োজিত ‘গণমাধ্যমের সাম্প্রতিক চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সব সরকারই জনগণের চেয়ে গণমাধ্যমকে বেশি ভয় পায়। আর এ কারণে বারবার গণমাধ্যমের ওপর আক্রমণ হয়।

এ বি এম মূসা বলেন, দেশে সাম্প্রতিক যে চ্যালেঞ্জ সেটা শুধু গণমাধ্যমের নয়, গণতন্ত্র টিকেয়ে রাখার চ্যালেঞ্জ, গণতান্ত্রিক পরিবেশ বজায় রাখার চ্যালেঞ্জ। দেশে যারা ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে চেয়েছে সসম্মানে যেতে পারেনি। আমরা দেখেছি যিনি আইন করেন তিনি পরবর্তীতে সেই আইনের ভিকটিম হন।

অনুষ্ঠিত সেমিনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে আমরা নিজেদের সাহসী করতে পারবো, সবাইকে প্রভাবিত করতে পারবো। এখন জনমত আমাদের পরিচালিত করছে। কারণ জনমত যা করছে-বলছে আমরা সেটাই লিখছি। সুতরাং গণমাধ্যমকে গণমাধ্যমের মতো চলতে দিতে হবে।

সরকারের করা বিতর্কিত আইনের বিষয়ে তিনি বলেন, যে সরকার এ ধরনের আইন করে তারাই ওই আইনের শিকার হয়।

সেমিনারে মূল বিষয়বস্তুর ওপর প্রবন্ধ পাঠ করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক চিন্ময় মুৎসুদ্দী।

প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও ‘নিউজ টুডে’ পত্রিকার সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আইসিটির ৫৭ ধারা সংশোধন এবং সম্প্রচার নীতিমালা দুটিই উদ্বেগের বিষয়। কারণ, আইসিটি অ্যাক্টের মধ্যে স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্টের ভূত দেখা যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীর গণমাধ্যম-বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, গণমাধ্যমের সার্বিক সংকট নিরসন করতে হলে কার পক্ষে বা বিপক্ষে যাবে, তা বিবেচনা না করে সত্য বিষয়টি প্রকাশ করা উচিত।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কাজী রওনক হোসেনের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএফইউজের একাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, দি ইন্ডিপেনডেন্টের সম্পাদক মাহবুব-উল আলম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি হাসান শাহরিয়ার, খন্দকার মনিরুল আলম, শওকত মাহমুদ, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বিএফইউজের আরেক অংশের সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর, এনটিভির হেড অব নিউজ খায়রুল আনোয়ার মুকুল, তথ্য কমিশনার সাদেকা হালিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ প্রমুখ।