মারমুখী পুলিশের টার্গেট দায়িত্বরত সাংবাদিক!

বুধবার, আগস্ট ১৪, ২০১৩

:: প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

BANGLA_VISION(১৪ আগস্ট ২০১৩)- জামায়াতের ডাকা টানা দ্বিতীয় দিনের হরতাল চলাকালে বিনা উস্কানিতে মারমুখী পুলিশের প্রধান টার্গেট ছিলেন দায়িত্বরত সাংবাদিকরা। বুধবার সকালে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সাংবাদিকদের কাজে পুলিশের বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার সকাল সাতটায় রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় পুলিশের ছোড়া গুলিতে বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল বাংলাভিশনের ক্যামেরাপার্সন জহুরুল ইসলাম জনি আহত হয়েছেন। তাকে দনিয়া ইসলামিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার সকালে যাত্রাবাড়ীর দনিয়া স্কুলের সামনে থেকে জামায়াত-শিবির কর্মীরা মিছিল বের করে গাড়ি ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। এ সময় জহুরুল ইসলাম জনি ক্যামেরায় এ দৃশ্য ধারণ করছিলেন। পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশের ছোড়া গুলি বাংলাভিশনের ক্যামেরাপার্সন জনির গায়ে লাগে। তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দনিয়া ইসলামিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে গুলির বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

এদিকে সকাল ৬টার দিকে মিরপুর-১৩ থেকে ১০নম্বর গোল চত্বরের দিকে যাত্তয়ার সময় এটিএন বাংলা, বাংলা নিউজ, রেডিত্ত টুডে, কালের কন্ঠ পত্রিকার সাংবাদিকদের বাধা দেয় পুলিশ। এসময় রেডিত্ত টুডের সাংবাদিক অমিত রায়হানকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।