সাংবাদিক নির্মল সেনের ৮৪তম জন্মদিন শনিবার

শনিবার, আগস্ট ৩, ২০১৩

:: প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

Nirmol-sen(৩ আগস্ট ২০১৩)- বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিস্ট, রাজনীতিবীদ ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক নির্মল সেনের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী আজ।

১৯৩০ সালের এইদিনে কোটালীপাড়া উপজেলার দিঘিরপাড় গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত হিন্দু পরিবারে এ প্রথিতযশা সাংবাদিক জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা সুরেন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত ও মা লাবন্য প্রভা সেনগুপ্ত। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে নির্মল সেন পঞ্চম। তার বাবা কোটালীপাড়ার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ কোটালীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনের গণিতের শিক্ষক ছিলেন।

ঝালকাঠি জেলার কলসকাঠি বিএম একাডেমি থেকে ১৯৪৪ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন নির্মল সেন। তিনি বরিশাল বিএম কলেজ থেকে আইএ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ ও এমএ পাস করেন।

১৯৪৭ সালে দেশ বিভক্তির পর নির্মল সেনের বাবা-মা অন্য ভাই-বোনদের সঙ্গে নিয়ে কলকাতা চলে যান। কিন্তু জন্মভূমির প্রতি অকুন্ঠ ভালবাসার কারণে এ দেশেই থেকে যান তিনি।

নির্মল সেন ২০০৩ সালে ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। এরপর দেশে-বিদেশে চিকিৎসা শেষে কোটালীপাড়ার পৈত্রিক বাড়িতে তিনি অসুস্থ অবস্থায় কাটিয়েছেন। গত ৮ জানুয়ারি তিনি ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নির্মল সেনের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় ‘ভারত ছাড়ো’ আন্দোলনের মাধ্যমে স্কুল জীবন থেকে। কলেজ জীবনে তিনি অনুশীলন সমিতির সক্রিয় সদস্য ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি আরএসপিতে যোগ দেন। তিনি দীর্ঘদিন শ্রমিক কৃষক সমাজবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সভাপতি ছিলেন।

১৯৬৯ সালে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার মধ্যে দিয়ে নির্মল সেন তার সাংবাদিক জীবন শুরু করেন। তার পর দৈনিক আজাদ, দৈনিক পাকিস্তান, দৈনিক বাংলা পত্রিকায় সাংবাদিকতা করেন।

তিনি বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন। এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিষয়ে অতিথি শিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন।

লেখক হিসেবেও নির্মল সেনের যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। তার লেখা বইগুলোর মধ্যে পূর্ব-পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ, মানুষ সমাজ রাষ্ট্র, বার্লিন থেকে মস্কো, মা জন্মভূমি, স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই, আমার জবানবন্দী উল্লেখ্যযোগ্য।

এদিকে জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ১০টায় গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় কর্মরত সাংবাদিকরা স্থানীয় বঙ্গবন্ধু দারিদ্র বিমোচন ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমির হল রুমে এক আলোচনা সভার আয়োজন করেছেন।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কোটালীপাড়া শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ গৌরাঙ্গ লাল চৌধুরী। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিকরা তার বর্ণাঢ্য জীবনের ওপর আলোচনায় অংশ নেবেন।