রনিকে টেলিভিশনে বয়কটের আহবান

রবিবার, ২১/০৭/২০১৩ @ ৩:০৬ অপরাহ্ণ

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

roni-tv(২১ জুলাই ২০১৩)- সরকার দলীয় সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনির হাতে টেলিভিশনের সাংবাদিক আক্রান্তের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সিনিয়র সম্প্রচার সাংবাদিকরা। তারা টেলিভিশনে রনিকে বয়কটের আহ্বান জানিয়েছেন।

রোববার এক বিবৃতিতে তারা এই আহ্বান জানান।

মনজুরুল আহসান বুলবুল স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে তারা বলেন, গত ২০ জুলাই পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনি ও তার সহযোগীদের হাতে ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক মহসিন মকবুল এবং ইমতিয়াজ মোমিন সনি আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দেশের সিনিয়র সম্প্রচার সাংবাদিকগণ।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের অপরাধবিষয়ক অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান ‘তালাশ’ এর সংবাদ সংগ্রহের কাজে শনিবার রাজধানীর মেহেরবা প্লাজায় সংসদ সদস্য গোলাম মওলা রনি কাছে যান। সংবাদ সংগ্রহের এক পর্যায়ে গোলাম মওলা রনি এবং তার সর্মথক ক্যাডাররা সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে। সন্ত্রাসীরা সাংবাদিকদের বেধড়ক মারধর করে এবং তাদের ক্যামেরা ও মাইক্রোফোন কেড়ে নেয়। হামলায় সাংবাদিক মহসিন মকবুল এবং ইমতিয়াজ মোমিন সনি আহত হয়েছেন।

সাংবাদিকরা বিবৃতিতে বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির হাতে ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিকরা যেভাবে নিগৃহীত ও নির্যাতিত হয়েছেন তা ন্যাক্কারজনক ও নিন্দনীয়। দেশের নীতি নির্ধারকগণ যখন গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার কথা বলেন তখন সরকারি দলের একজন সাংসদের এই আচরণ তাদের সেই সদিচ্ছাকেই প্রশ্নবিদ্ধ করে। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে। সিনিয়র সাংবাদিকগণ আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দ্রুত এই ঘটনার জন্য দায়ীদের শাস্তি নিশ্চিত করার আহবান জানান। এই ঘটনার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট এমপিকে কোনো টেলিভিশনে কোনো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ না জানানোরও আহবান জানানো হয় ।

যারা বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন: মনজুরুল আহসান বুলবুল (বৈশাখী টেলিভিশন), খালেদ মহিউদ্দিন ( ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন), খায়রুল অনোয়ার (এনটিভি), সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা (চ্যানেল ৭১), মোস্তফা ফিরোজ ( বাংলাভিশন), ইব্রাহিম আজাদ (একুশে টেলিভিশন), সুকান্ত গুপ্ত অলক ( দেশ টিভি); সাইফুল আমিন ( চ্যানেল আই), জ ই মামুন (এটিএন বাংলা), মুন্নী সাহা (এটিএন নিউজ ), রেজোয়ানুল হক রাজা ( মাছ রাঙা), শরীফুল ইসলাম ( এসএটিভি), লুৎফর রহমান ( আরটিভি), মেসবাহ আহমেদ (গাজী টিভি), সোহেল মাহমুদ (মোহনা টিভি), মাহমুদ আল ফয়সাল ( মাই টিভি)।