‘গণমাধ্যম বন্ধের সঙ্গে স্বাধীনতার সম্পর্ক নেই’

মঙ্গলবার, ০৪/০৬/২০১৩ @ ১০:০০ অপরাহ্ণ

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

inu(০৪ জুন ২০১৩)- দৈনিক আমার দেশ, ইসলামিক টিভি এবং দিগন্ত টিভি বন্ধের সঙ্গে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কোনো সম্পর্ক নেই বলে সংসদে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মঙ্গলবার বিরোধী দলের সদস্য শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানীর পয়েন্ট অব অর্ডারে বন্ধ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম খুলে দেয়ার বিষয়ে তথ্যমন্ত্রীর বিবৃতি চাইলে মন্ত্রী সংসদকে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘ভিন্ন মত ও ভিন্ন আদর্শ প্রকাশের জন্য মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তিনি ফৌজদারি অপরাধে কারাগারে আটক আছেন’।

শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী তথ্যমন্ত্রীর কাছে দৈনিক আমারদেশ পত্রিকা ছাপানোর ব্যবস্থা করা এবং দিগন্ত টিভি ও ইসলামিক টিভির সম্প্রচারের ব্যবস্থা করার দাবি জানান।

শহীদ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘মিডিয়ার উপর সরকারের চলমান হস্তক্ষেপের কারণে গণমাধ্যম এবং মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপর হুমকিতে আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। দৈনিক আমার দেশের প্রেস তালা দিয়ে পত্রিকাটির ছাপা বন্ধ করা হয়েছে। পত্রিকাটির ভারপ্রাপ্ত সম্পাদককে কারাবন্দী করে নির্যাতন করা হচ্ছে। বেসরকারি টিভি চ্যানেল দিগন্ত টিভি এবং ইসলামিক টিভি বন্ধ করায় আমরা উদ্বিঘ্ন। কোনো কারণ না দেখিয়ে দুটি টিভি চ্যানেল বন্ধ করা বেআইনি। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং মত প্রকাশের ওপর হস্তক্ষেপ আশঙ্কাজনক’।

তিনি বলেন, ‘বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা, মত প্রকাশের স্বাধীনতা বিষয়ে আশঙ্কার বার্তা যাচ্ছে। আমরা কেউ আইনের উর্ধ্বে নই। আইনকে তার নিজস্ব গতিতে চলতে দেয়া উচিত’।

তিনি আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের মুক্তি, পত্রিকাটির প্রকাশনার ব্যবস্থা করা, দিগন্ত এবং ইসলামিক টিভি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করার জন্য তথ্যমন্ত্রীর কাছে দ্রুত পদক্ষেপ কামনা করেন।

শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর বক্তব্যের জবাবে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘সংবিধানে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা হয়েছে। সংবিধানের ৩৯ অনুচ্ছেদ অনুসারে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার জন্য আমরা সব ধরনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। আমরা তথ্য অধিকার আইন করেছি। তথ্য কমিশন গঠণ করেছি। এ সরকারের আমলে বেসরকারি খাতে টেলিভিশন, এফএম রেডিও, কমিউনিটি রেডিও’র অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রতিদিন ৩১৪টি দৈনিক পত্রিকা প্রকাশ হচ্ছে। ওই সব পত্রিকায় সরকারের সমালোচনা হচ্ছে। ভিন্ন মত প্রকাশ করা হচ্ছে’।

মন্ত্রী জানান, বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্যের বক্তব্যের বিষয়ে সরকারের স্পষ্ট অবস্থান রয়েছে। আমার দেশ পত্রিকা ছাপাতে সরকারের কোন বাধা নেই। তবে আমার দেশ পত্রিকার ছাপাখানায় আপত্তিজনক কিছু কাজ হচ্ছিল। সেখানে আপত্তিকর কিছু তথ্য পাওয়ার পর ছাপাখানা সাময়িকভাবে বন্ধ করে রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমার দেশ পত্রিকা বিকল্প পদ্ধতিতে ছাপাতে পারে। কিন্তু আইন অনুসারে অনুমতি না নিয়ে তারা দৈনিক সংগ্রামের ছাপাখানা থেকে দুই দিন ছাপিয়েছে। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে যখন দৈনিক সংগ্রাম কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছিলাম। দৈনিক সংগ্রাম কর্তৃপক্ষ তখন আমাদের চিঠির উত্তরে ভুল স্বীকার করেছে। নিয়ম অনুসারে অনুমতি নিয়ে যে কোনো ছাপাখানা থেকে আমার দেশ পত্রিকা ছাপাতে পারে’।

এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘আমার দেশ পত্রিকা সম্প্রতি উস্কানিমূলক খবর প্রকাশ করেছে। মক্কা শরীফের গিলাফ পরিবর্তনের ঘটনাকে পত্রিকাটি দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির দাবিতে ইমামদের মানববন্ধন হিসেবে প্রচার করেছে। দিগন্ত টিভি এবং ইসলামিক টিভির সম্প্রচার আমরা বন্ধ করেছি। গত ৫ মে হেফাজতে ইসলামের কর্মসুচি টিভি দুটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে। চ্যানেল দুটি ভুল তথ্য দিয়ে দেশে দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করছিল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরামর্শে দাঙ্গা যাতে না লাগে সেজন্য টিভি চ্যানেল দুটির সম্প্রচার সাময়িকভাবে বন্ধ করেছি। টিভি চ্যানেল দুটিকে আমরা শোকজ করেছি। ইতিমধ্যে তারা শোকজের জবাব দিয়েছে। জানমালের নিরাপত্তার জন্য, দেশের শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য সরকার যে কোন পদক্ষেপ নিতে পারে। সুতরাং ইসলামিক ও দিগন্ত টিভি বন্ধের সঙ্গে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার সম্পর্ক নেই’।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সমালোচনা চাই। আমরা মনে করি সমালোচনা আমাদের সমৃদ্ধ করবে। কিন্তু গণমাধ্যম কখনোই ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত দিতে পারে না। দেশে দাঙ্গা লাগাতে পারে না। খন্ডিত তথ্য দিতে পারে না। তথ্য গোপন করতে পারে না’। সূত্র: বাংলামেইল