শফিক রেহমান

মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৩

শফিক রেহমান (2)লেখক, সম্পাদক, টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপক, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট, মুভি সংগ্রাহক ও বাংলাদেশে ভালোবাসা দিনের প্রবর্তক শফিক রেহমানের জন্ম ১১ নভেম্বর ১৯৩৪ সালে বগুড়া শহরে। ১৯৫৬ সালে ঢাকা ইউনিভার্সিটি থেকে ইকোনমিকসে এমএ ডিগ্রি অর্জনের পর ১৯৫৭ সালে তিনি লন্ডনে চলে যান অ্যাকাউন্টেন্সি পড়াশোনা ও হাওয়াইয়ান মিউজিক চর্চার জন্য। সেখানে চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট হওয়ার পর ১৯৬৮ সালে ঢাকায় ফিরে আসেন।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময়ে তিনি আবার লন্ডনে চলে যান এবং জাস্টিস আবু সাঈদ চৌধুরীর অধীনে কাজ করেন। অ্যাকাউন্টেন্ট হিসেবে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের চিফ অ্যাকাউন্টেন্ট, রহমান হকের সিনিয়র পার্টনার, জহুরুল ইসলাম গ্রম্নপের ফাইন্যান্স ডিরেক্টর, অস্ট্রেলিয়ান গ্রুপ টিঅ্যান্টটি’র অ্যাডমিন ম্যানেজার পদে তিনি লন্ডন, ঢাকা, মিডল ইস্ট ও জাপানে কাজ করেন। পাশাপাশি তিনি মিডিয়াতেও কাজ করেন (বিবিসি, ইত্তেফাক, ইংরেজি সাপ্তাহিক দি এপ্রেস) এবং লন্ডনে বহু ভাষাভিত্তিক স্পেক্ট্রাম রেডিও প্রতিষ্ঠা করেন (১৯৮৮)

তিনি সাপ্তাহিক ও দৈনিক যায়যায়দিন প্রতিষ্ঠা ও সম্পাদনা করেন। আশির দশকে স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের বিরম্নদ্ধে লেখালেখির জন্য প্রায় ছয় বছর লন্ডনে নির্বাসিত ছিলেন। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের পর ১৯৯২ সালে তিনি বাংলাদেশে ফিরে আসেন এবং যায়যায়দিন পুনঃপ্রকাশ করেন। কিন্তু সেনাসমর্থিত সরকারের বিরুদ্ধে লেখালেখির জন্য ২০০৮ সালে তিনি যায়যায়দিন-এর সম্পাদক পদটি হারান। এখন মৌচাকে ঢিল ম্যাগাজিনের সম্পাদনা করছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনে লাল গোলাপসহ বহু অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেছেন।

রেডিও ও টিভিতে গিটার বাদনের প্রোগ্রাম করেছেন। ১৯৯৩ সালে তিনি বাংলাদেশে ১৪ ফেব্রম্নয়ারিতে ভালোবাসা দিন পালনের সূচনা করেন। ঢাকায় একাডেমি ফিল্ম সোসাইটি প্রতিষ্ঠা করেন, যেখানে প্রায় দশ হাজার বিদেশী মুভির ডিভিডি লাইব্রেরি আছে। তার লেখা বাংলাদেশে টর্চার নামে একটি রিসার্চধর্মী বই এখন প্রকাশের অপেক্ষায় আছে।

সর্বশেষ