৬৩ বছরে পা দিল দৈনিক সংবাদ

শুক্রবার, ১৭/০৫/২০১৩ @ ৭:৫৭ অপরাহ্ণ

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

sangbad logoআজ ১৭ মে দৈনিক সংবাদের ৬৩তম জন্মদিন। ঐতিহ্যবাহী পত্রিকা সংবাদ আজ ৬৩ বছরে পা দিল।বাঙালি জাতির গুরুত্বপূর্ণ সংগ্রামের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে একাত্ম সংবাদ আজও টিকে আছে তার মাথা না নোয়ানোর নিজস্ব বৈশিষ্টকে ধারণ করে।

১৯৫১ সালের ১৭ মে দৈনিক সংবাদ প্রকাশিত হয়। ১৯৫২ সালে মুসলিম লীগ পত্রিকাটি কিনে নেয়। এ দেশের সাংবাদিকতায় অন্যতম পথিকৃৎ খায়রুল কবির সংবাদের কঠিন সময়ে হাল ধরেন। ১৯৫৪ সালে মুসলিম লীগের ভরাডুবির পর সংবাদ’র অবস্থা যখন সঙ্গীন হয়ে এলো তখন সংবাদ কিনে নেন আহমদুল কবির। তারই উদ্যোগে ১৯৫৪ সালে গঠিত হয় দি সংবাদ লিমিটেড। ২০০৩ সালে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সংবাদ’র প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৫৪ সাল থেকে মুক্তিযুদ্ধের সময় পর্যন্ত গণতন্ত্র, বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনায় মানুষের অদ্বিতীয় কণ্ঠস্বর হিসেবে ‘সংবাদ’-এর ভূমিকা আজ ইতিহাস। দেশের বাম রাজনীতি তথা কমিউনিস্ট দলীয় না হলেও প্রগতি ধারার পত্রিকা হিসেবে এ দেশের মুক্তবুদ্ধির চর্চাকে শাণিত করেছে দৈনিক সংবাদ।

১৯৫৮ সালে সামরিক শাসন জারির পর প্রশাসন সেদিন সংবাদ’র প্রকাশনাকে বন্ধ করে দিতে চাইলে সাংবাদিক রণেশ দাশগুপ্ত বলেছিলেন, অন্তত দু’পৃষ্ঠা হলেও সংবাদ বেরুবে। রণেশ দাশগুপ্ত ছাড়াও নাসির উদ্দিন, সৈয়দ নুরুদ্দিন, জহুর হোসেন চৌধুরী, আবু জাফর শামসুদ্দিন, সত্যেন সেন, সন্তোষ গুপ্ত, শহীদুল্লাহ কায়সার এবং বজলুর রহমানের মত প্রখ্যাত সাংবাদিক বুদ্ধিজীবীরা বিভিন্ন পর্যায়ে সংবাদে কাজ করেছেন।

১৯৭১ সালে বাঙালি জাতির ওপর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আঘাতের কালো হাত সংবাদ’কেও স্পর্শ করে । পুড়িয়ে দেয়া দেয়া হয় ‘সংবাদ’। ২৮ মার্চ সংবাদ’র সঙ্গেই ভস্মীভূত হন সাংবাদিক শহীদ সাবের। নানা প্রলোভন ও হুমকির মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে সংবাদ আর প্রকাশিত হয়নি। ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি যেদিন বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে আসেন, মুক্তিযুদ্ধের পর সেদিন প্রথম সংবাদ বের হয়।