তথ্য সেবায় জনপ্রিয়তা পাচ্ছে কমিউনিটি রেডিও

মঙ্গলবার, মে ৭, ২০১৩

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

comunity radioএক সময় গ্রামীণ জনপদের অধিবাসীদের একমাত্র বিনোদন ছিলো রেডিও। বিজ্ঞানের জয়যাত্রা আর যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের কারণে রেডিওর পাশাপাশি টেলিভিশন বিনোদনের খোরাক যোগাচ্ছে। তারপরও একেবারে প্রান্তিক পর্যায়ে বিশেষ করে উপকূলীয় অঞ্চলে তথ্য-বিনোদন পাওয়ার সুযোগ ছিল একাবারেই কম। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে কমিউনিটি রেডিও তৃণমূলের কাছে পৌঁছে গেছে।

বাংলাদেশে এখন ১৪ টি কমিউনিটি রেডিও নির্দিষ্ট এলাকায় তথ্য সেবা দিয়ে আসছে। কমিউনিটি রেডিওগুলো ১৭ কিলোমিটারের পরিধিতে সম্প্রচার করে থাকে। এই রেডিওর সম্প্রচার সাধারণত ঘনবসতি এলাকাগুলোই নেটওয়ার্ক স্থাপন করেছে। ররগুনার কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর(ডিএই) এর তথ্য অনুযায়ী বরগুনার রেডিও ‘লোকবেতারে’র সম্প্রচার শুনতে পায় প্রায় সাড়ে ৬ লাখ শ্রোতা।

অপরদিকে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য অনুযায়ী রেডিও ‘সাগর’র সম্প্রচার শুনতে পায় প্রায় পৌঁনে তিন লাখ শ্রোতা। আর রাজশাহীর রেডিও ‘পদ্মা’র তথ্য অনুযায়ী তাদের সম্প্রচার শুনতে পায় প্রায় সাড়ে চার লাখ শ্রোতা।

বাংলাদেশের কমিউনিটি রেডিওগুলোতে কৃষি তথ্য, স্বাস্থ্য, পরিবার-পরিকল্পনা এবং শিক্ষা সম্পর্কিত বিষয়াদি প্রচার করা হয়। স্থানীয় লোকগোষ্ঠির সংস্কৃতি,আচার-আচরণ ও জীবন প্রণালী বিচারে এনে এই রেডিওগুলো আঞ্চলিক ভাষায় অনুষ্ঠান প্রচার করে থাকে। গ্রামীণ সমাজের তথ্য এবং বিনোদনমূলক চাহিদা পূরন করছে কমিউনিটি রেডিও।

এই কমিউনিটি রেডিও স্টেশনগুলোর উন্নয়ন আরো জোরদার করতে অনেক ধরনের উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। স্থানীয় জনগণদের অংশগ্রহনে বিশেষ দলভিত্তিক আলোচনার (এফজিডি) মাধ্যমে এই রেডিওগুলো শ্রোতাদের চাহিদা চিহ্নিত করছে এবং সেই অনুযায়ী অনুষ্ঠান প্রচার করছে। আরো মানসম্মত অনুষ্ঠান প্রচার এবং শ্রোতাদের মনোযোগ আকর্ষণের উদ্দেশে রেডিওর কর্মীরা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের অনুষ্ঠান তৈরি এবং কারিগরি শিক্ষা উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ গ্রহন করছে। শ্রোতার সংখ্যা বৃদ্ধি এবং স্থানীয় জনগণের মাঝে রেডিও স্টেশনের প্রচারের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন সচেতনতা মূলক কার্যক্রমও পরিচালিত হচ্ছে।

রেডিও ‘লোকবেতার’র স্টেশন পরিচালক তারেক মাহমুদ বলেন, ‘উপকূলবাসীদের তথ্যের আদান-প্রদানে কমিউনিটি রেডিও ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে। যেহেতু এই কমিউনিটি রেডিওগুলো গ্রামীণ জনগণের উদ্দেশ্যে সম্প্রচার করে, গ্রামীণ বাজারে তথ্য সম্প্রচারের ক্ষেত্রে এই রেডিওগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম। তারা শুধু তথ্য সম্প্রচারের ক্ষেত্রেই নয় বরং পণ্য বিপনণের ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।’

ভারত, নেপাল, উগান্ডা এবং জাম্বিয়া সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কমিউনিটি রেডিও সফলতার সাথে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। আর বাংলাদেশের গ্রামীণ জনপদগুলোতেও যে এই রকম রেডিও গুলো সফলতা অর্জন করছে তার বিবিধ লক্ষণ ইতিমধ্যেই পরিলক্ষিত হয়েছে। সূত্র: ঢাকাটাইমস