তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার দেশ-এর সাংবাদিকদের বৈঠক

বৃহস্পতিবার, ১৮/০৪/২০১৩ @ ১০:০০ পূর্বাহ্ণ

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক::

আমার দেশ পত্রিকার ছাপাখানা খুলে দেয়া, সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মা মাহমুদা খানমের নামে করা মামলা প্রত্যাহার ও কারাগারে আটক ১৯ প্রেস কর্মচারীকে মুক্তি দিতে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কাছে দাবি জানিয়েছেন আমার দেশ-এর সাংবাদিকরা। বুধবার বিকালে তথ্য মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর কক্ষে দেখা করে এসব দাবি জানানো হয়। এ সময় তারা মাহমুদুর রহমানের অনশনের কথা জানিয়ে তার জীবন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন। তথ্যমন্ত্রী দাবিগুলো নোট করে রেখে বলেন, দাবিগুলো পূরণ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত, এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। এ সময় আমার দেশ-এর পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে একটি চিঠি দেয়া হয়।

এতে বলা হয়, এ তিন দফা দাবি আদায়ে কারাবন্দি মাহমুদুর রহমান ১৫ এপ্রিল থেকে অনশন শুরু করেছেন। তার জীবন নিয়ে আমার দেশ পরিবার শঙ্কার মধ্যে রয়েছে। ছাপাখানা বন্ধ করে দেয়া ও পত্রিকা ছাপতে না দেয়ায় আমার দেশ অফিসে কর্মরত প্রায় তিনশ’ সাংবাদিক-কর্মচারী ও ঢাকার বাইরে কর্মরত আরও পাঁচশ’ সাংবাদিক এবং পত্রিকা সংশ্লিষ্টরা বেকার হওয়ার উপক্রম হয়েছে। তারা পরিবারের ভবিষ্যত্ নিয়ে উদ্বিগ্ন। এতে আরও বলা হয়, ১৬ এপ্রিল তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে আপনি বলেছেন, আমার দেশ প্রকাশনায় কোনো বাধা নেই। আমার দেশ পত্রিকার ছাপাখানা খুলে দিয়ে আপনার এ বক্তব্যের সত্যতা প্রমাণ করবেন। পাশাপাশি আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের জীবন শঙ্কামুক্ত করতে অবিলম্বে তার মায়ের নামে করা মামলা প্রত্যাহার এবং প্রেস ও বাউন্ডিং কর্মীদের মুক্তি দেবেন। অন্যথায় এর দায়-দায়িত্ব তথ্যমন্ত্রী হিসেবে আপনাকেও বহন করতে হবে।

তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও আমার দেশ-এর নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ, বার্তা সম্পাদক জাহেদ চৌধুরী, ফিচার এডিটর কবি হাসান হাফিজ, সহকারী সম্পাদক কবি আবদুল হাই শিকদার, নগর সম্পাদক ও বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ও আমার দেশ-এর সিনিয়র রিপোর্টার কাদের গণি চৌধুরী, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ও আমার দেশ-এর স্পোর্টস এডিটর ইলিয়াস খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিকল্প ছাপাখানায় পত্রিকা ছাপার বিষয়ে ঢাকা জেলা প্রশাসককে অবহিত করে দেয়া চিঠিতে স্বাক্ষরকারীর বৈধতার বিষয়ে জানতে চান। এ সময় আমার দেশ-এর সাংবাদিকরা আইন মেনে ওই চিঠি দেয়া হয়েছে বলে জানান। তারা এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য ও যুক্তি মন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন। আমার দেশ-এর তিন দাবি মেনে নেয়ার বিষয়ে মন্ত্রীর ইতিবাচক পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান।

ডিআরইউ’র উদ্বেগ
দৈনিক আমার দেশ পত্রিকা বন্ধে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ)। বুধবার সংগঠনের সভাপতি শাহেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান এক বিবৃতিতে এই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, আমার দেশের প্রকাশনা বন্ধের কারণে ডিআরইউ’র ২৪ জন সদস্য ক্ষতির সন্মুখীন হচ্ছেন। তাদের চাকরি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

ডিআরইউ নেতারা আমার দেশে কর্মরত ডিআরইউ সদস্যদের অনিশ্চিত ভবিষ্যতের কথা বিবেচনায় রেখে সংবাদপত্রটি প্রকাশনার বিষয়ে ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।