হাটহাজারীর চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী দিদারুল আলম ধরা-ছোঁয়ার বাইরে

সোমবার, ১১/১১/২০১৯ @ ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক :: চট্টগ্রামের হাটহাজারীর জোবরা এলাকার মাদক ব্যবসায়ী দিদারুল আলমের বিরুদ্ধে রয়েছে মাদক আইনের একাধিক মামলা। কয়েকটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও রয়েছে। জোবরা এলাকার তরুণ-যুবকদের মাদকাসক্ত হওয়ার পেছনেও বড় দায় রয়েছে দিদারুল আলমের। এসব তথ্য অজানা নয় পুলিশ প্রশাসনেরও। তবুও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে এই মাদক ব্যবসায়ী।

পুলিশের কাছে অভিযোগ আছে, চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ১১ নং ইউনিয়নের ২ নং জোবরা ওয়ার্ডে মাদকের ব্যবসা করে আসছে কিছু অসাধু লোক। তাদেরকে পরিচালনা করেন মাহাবুল আলমের ছেলে দিদারুল আলম। তিনি চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গা থেকে ইয়াবা থেকে শুরু করে গাঁজা ও ফেনসিডিলও জোবরা এলাকায় বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন।

পরে সেখান থেকে হাটহাজারীতে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রেতাদের কাছে পাঠিয়েও দেন। এসব মাদক বিক্রেতাদের হাতে পৌঁছাতে সহায়তা করেন তার সাথে থাকা সহযোগিরা। দিদারুলের কিছু সহযোগিকে পুলিশ ধরতে সক্ষম হয়েছে। তবে মূল মাদক ব্যবসায়ী দিদারুল আলম ও তার সহযোগি মো. জামাল (৩২) ও মো.শাহ আলম (৩৫) এখনো ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানান, তথ্য থাকলেও কৌশল ও জনবলের দিক দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পেরে উঠছেন না তাঁরা। তবে দিদারুলকে ধরতে তাদের তৎপরতা অব্যাহত আছে।

পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের দাবি, মাদক ব্যবসায়ী দিদারুল আলমের সঙ্গে তাদেরই কোনো না কোনো কর্মচারী ও সোর্সদের সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে। তারা প্রশাসনের গতিবিধি আগাম জানিয়ে দেয়। তাদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে বলেও জানান তারা।

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে পুলিশের নিয়মিত অভিযান চলছে। এসব অভিযানে প্রতিনিয়ত মাদক ব্যবসায়ীরা গ্রেপ্তার হচ্ছেন। পলাতক মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারে অভিযান জোরদার করা হচ্ছে।

সর্বশেষ