মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি

বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৬

:: প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

Editors Councilডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহসহ মানহানির অভিযোগে দেশের বিভিন্ন এলাকায় দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার চেয়েছে সম্পাদক পরিষদ।

বুধবার পরিষদের সভার পর সভাপতি গোলাম সারওয়ার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই দাবি জানানো হয়।

ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ পরিষদের সম্পাদক।

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআইয়ের ‘সরবরাহ করা’ শেখ হাসিনার ‘দুর্নীতির খবর’ যাচাই না করে প্রকাশের ‘ভুল’ মাহফুজ আনাম স্বীকারের পর তার বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে অর্ধশতাধিক মামলা হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সমর্থকদের দায়ের করা এসব মামলার অধিকাংশই মানহানির, কয়েকটিতে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগও আনা হয়েছে।

৬৬টি মামলায় ৮২ হাজার ৬৪৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে বলে ছাপানো সংবাদপত্রগুলোর সম্পাদকদের সংগঠন সম্পাদক পরিষদের বিবৃতিতে উল্লেখ করে তার নিন্দা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, “এ ধরনের ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থি। আমরা আশা করি, মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মামলা প্রত্যাহার করা হবে এবং এ ব্যাপারে সকল মহলের শুভবুদ্ধির উদয় হবে।”

সভায় গোলাম সারওয়ার ও মাহফুজ আনামসহ উপস্থিত ছিলেন নিউজ টুডে সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, মানবজমিন সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, ইনডিপেনডেন্ট সম্পাদক এম শামসুর রহমান, বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, নিউ এইজ সম্পাদক নুরুল কবির, কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীন, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান প্রমুখ।

এদিকে মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে মামলা এবং সমন জারিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)।

আসকের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “সম্পাদক মাহফুজ আনামের দুঃখ প্রকাশ ও স্বীকারোক্তির পরও তার বিরুদ্ধে এ ধরনের আইনি প্রক্রিয়ার ঘটনা গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য মোটেই ইতিবাচক নয়। বরং এতে মতপ্রকাশ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।”

-বিডিনিউজ