বস্তুনিষ্ঠতা ও দায়িত্বশীলতার বিকল্প নেই

শনিবার, মে ১৬, ২০১৫

:: প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

Du VC a a m s arefin siddiqueসাংবাদিকতায় বস্তুনিষ্ঠতা ও দায়িত্বশীলতার বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

শুক্রবার (১৫ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (ঢাবিসাস) ‘শতবর্ষের পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: উচ্চশিক্ষায় অর্জন ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপাস্থাপন করেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানজিম উদ্দিন খান।

উপাচার্য বলেন, সাংবাদিকতা একটি চ্যালেঞ্জিং ও অত্যন্ত কঠিন পেশা। যারা এ পেশায় আসেন তারা এটা জেনেই আসেন, একাগ্রতা ছাড়া এ পেশায় টিকে থাকা যায় না। তবুও কিছু কিছু ক্ষেত্রে সাংবাদিকরা বস্তুনিষ্ঠতা বজায় রাখতে ব্যর্থ হন। অনেক সময় যার বিরুদ্ধে কিছু লেখা হয় তাকে জিজ্ঞেস পর্যন্ত করা হয় না। আবার অনেকের সঙ্গে কথা না বলেই তার বক্তব্য বলে চালিয়ে দেওয়া হয়। একুশ শতকের সাংবাদিকতায় এটি একেবারেই অগ্রহণযোগ্য।

তিনি বিগত ইতিহাস পর্যালোচনা করে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় একটি জাতিসত্ত্বার বিকাশ ও একটি নবীন রাষ্ট্র সৃষ্টির ক্ষেত্রে অনন্য অবদান রেখেছে।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসকে সঠিকভাবে চর্চা করতে হবে। স্বাধীনতা ও সত্যনিষ্ঠার মূল্যবোধকে প্রতিষ্ঠা করে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে হবে।

উপাচার্য জোরালোভাবে বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয় ১৯৭৩-এর আদেশের আদর্শগত ভিত্তি দিয়ে পরিচালিত হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও পরিচালিত হবে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাই ভবিষ্যৎ রচনা করে দেশকে এগিয়ে নেবে, নের্তৃত্ব দেবে সমাজ ও রাষ্ট্রকে।

নবীন সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ ও দায়িত্বশীল সাংবাদিকতা করার পরামর্শ দিয়ে তিনি আরও বলেন, সত্য বলা কঠিন তবে সত্য প্রকাশের সাহসিকতার যে শিক্ষা তোমরা অর্জন করছ, তা নিয়ে ভ্রান্তি সৃষ্টি নয়, সত্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সেমিনারে আলোচনায় অংশ নেন কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, ঢাবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, আর্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন ও সূর্যসেন হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম, বাংলা বিভাগের সংখ্যাতিরিক্ত অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক প্রমুখ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মাসুম বিল্লাহর সভাপতিত্বে সেমিনার সঞ্চালনা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক সানাউল হক সানী।

অনুষ্ঠানে সমিতির বার্ষিক প্রকাশনা ‘প্রতিষ্ঠার ৩০ বছর’ শীর্ষক সংকলন প্রকাশ করা হয়।

সূত্র: বাংলানিউজ।