পরিবেশ সাংবাদিকতায় দরকার বাড়তি প্রস্তুতি

Tuesday, 14/05/2013 @ 11:15 pm

প্রেসবার্তাডটকম ডেস্ক ::

South Ctg Pic-13-05-2013পরিবেশ নিয়ে অনেক খবর নিয়মিত সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়ে থাকে৷ বিশেষ করে প্রাকৃতিক দুর্যোগ চলাকালে পরিবেশ সাংবাদিকদের দায়িত্ব বেড়ে যায় অনেক বেশি৷

পরিবেশ নিয়ে যারা সাংবাদিকতা করেন তাদের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ আসে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়৷ আর সাধারণ সময়ের চেয়ে দুর্যোগ নিয়ে রিপোর্টিং একেবারে আলাদা৷ প্রাকৃতিক দুর্যোগের ওপর প্রতিবেদন সাধারণ প্রতিবেদন থেকে আলাদা৷ কারণ হিসেবে ঢাকার নিউ এজ পত্রিকার সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘‘সাধারণ রিপোর্ট যেমন আমরা অনেক সময় অফিসে বসেই টেলিফোনে সাক্ষাৎকার নিয়ে করতে পারি৷ কিন্তু পরিবেশ নিয়ে, বিশেষ করে প্রাকৃতিক দুর্যোগ নিয়ে প্রতিবেদন করতে হলে স্পটে যেতে হবে৷ নিজের চোখে না দেখলে প্রতিবেদনটা কেমন হবে সেটা আসলে বোঝা যায় না৷ ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতের পর দুর্গত এলাকার সেই ভয়াবহ দৃশ্য প্রত্যক্ষ না করলে বিশ্বাস করা সম্ভব নয়৷”

প্রাকৃতিক দুর্যোগ নিয়ে প্রতিবেদন তৈরির জন্য দুর্গত এলাকাতে যাওয়ার আগে বেশ কিছু প্রস্তুতি নিতে হয় একজন প্রতিবেদককে৷ তার মধ্যে অন্যতম দুর্গত এলাকা সম্পর্কে ভালোভাবে ধারণা নেওয়া, জানালেন ঢাকার প্রথম আলো পত্রিকার সাংবাদিক ইফতেখার মাহমুদ৷ এই ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘‘দুর্গত এলাকায় যাওয়ার সময় সঙ্গে ফার্স্ট এইড ও প্রয়োজনীয় ওষুধ রাখি, পর্যাপ্ত শুকনো খাবার ও পানীয় জল থাকতে হবে৷ আমার সঙ্গে সবসময় একটা রেকর্ডার এবং একটি ক্যামেরা থাকে৷ ল্যাপটপ এবং দুই ধরণের ইন্টারনেট মোডেম রাখি৷ যদি একটা কাজ না করে তাহলে অন্যটা কাজে লাগবে৷ অতিরিক্ত ব্যাটারি, চার্জার এবং মাল্টিপ্লাগ সঙ্গে রাখি৷ আর নদীপথে গেলে একটা লাইফ জ্যাকেট থাকা উচিত৷ এছাড়া কোথাও আটকে গেলে থাকার জায়গা কোথায় হবে সেটাও ঠিক করে রাখি৷ আর অবশ্যই যে এলাকাতে যাচ্ছি সেখানকার প্রয়োজনীয় টেলিফোন নাম্বার সঙ্গে রাখি৷”

দুর্গত এলাকাতে যাওয়ার পর সেখানকার পরিস্থিতি মোকাবিলা করার মত যথেষ্ট শক্ত মানসিকতা থাকা উচিত একজন পরিবেশ সাংবাদিকের৷ কারণ তাকে হয়তো মানবিক পরিস্থিতি প্রত্যক্ষ করা লাগতে পারে, জানালেন ইফতেখার মাহমুদ৷ এছাড়া দুর্গত মানুষের প্রয়োজনকে সামনে রেখে তাকে প্রতিবেদন তৈরি করতে হয়৷ এই ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘‘এখানে অবজেক্টিভিটির সুযোগ আসলে কম৷ একদিনে বস্তুনিষ্ঠতাকে অক্ষুণ্ণ রেখে যেমন প্রতিবেদন তৈরি করতে হবে, তেমনি দুর্গত এলাকাতে মানুষের আসলে কী প্রয়োজন সেটাকেও সামনে রাখতে হবে একজন সাংবাদিককে৷ এজন্য স্থানীয় মানুষগুলোর নানামুখী মত এবং তাদের প্রবণতাকে জানতে হবে৷”

প্রাকৃতিক দুর্যোগের শিকার দুর্গত এলাকাতে নানা ধরণের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয় একজন সাংবাদিককে৷ এবং এজন্য তাকে সবসময় পুরোপুরি প্রস্তুত থাকতে হয়৷ একদিকে দুর্গত মানুষের মানবেতর পরিস্থিতি তাকে যেমনভাবে পীড়া দেয়, পাশাপাশি পেশাগত দায়িত্ব পালনের তাড়াও তাকে মোকাবিলা করতে হয়, যা মোটেই সহজ নয়৷ এছাড়া দুর্যোগ পরবর্তী তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি এর সুদূর প্রভাব নিয়েও প্রতিবেদন লেখেন একজন পরিবেশ সাংবাদিক৷ এজন্য তাকে দুর্গত এলাকার নিয়মিত খোঁজখবর রাখতে হয়৷