আর কত কাঁদবে উৎপলের পরিবার?

Tuesday, 07/11/2017 @ 1:11 am

:: শেখ মামুন-উর-রশিদ ::

গত ১০ অক্টোবর থেকে নিখোঁজ হওয়া পূর্বপশ্চিম বিডি ডট নিউজের সিনিয়র রিপোর্টার সাংবাদিক উৎপল চন্দ্র দাসের সন্ধান এখনো দিতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। নিখোঁজের প্রায় ২৫ দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো সন্ধান মিলেনি তার। শঙ্কা আর ভয়ে রাতের ঘুম হারিয়েছে উৎপলের পরিবার। প্রতিটা মুহুর্তে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছে উৎপলের মা। মা-বাবার এ কান্নার অবসান কবে হবে?

গত ১০ অক্টোবর অফিসের কাজ শেষে বাহিরে বের হন তিনি। মায়ের সাথে সামান্য সময়ের জন্য কথা হয় তার। ফোন ধরে ব্যস্ততার অজুহাতে মায়ের ফোন কেটে দেন তিনি। মায়ের সাথে শেষ কথা হয় সেদিন। তারপর শুনতে পান তার ছেলে নিখোঁজ। চঞ্চল প্রকৃতির সদা উৎফুল্ল্য ছেলেকে দেখার আকুতির অবসান কবে হবে? আর কত কাঁদবে উৎপলের পরিবার?

নির্ঘূম জেগে থাকা মায়ের প্রার্থনার শেষ কোথায়। স্কুল শিক্ষক বাবার প্রানবন্ত ও চঞ্চল প্রকৃতির সন্তান হারিয়ে যাওয়ার বেদনা ঘুচবে কবে। গণমাধ্যম যখন চতুর্থ রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃত, তখন একজন গণমাধ্যমকর্মী দিনের আলোয় নিখোঁজ হওয়া দুঃখের ও অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়। র্দীর্ঘ সময় ধরে নিখোঁজ হওয়া সাংবাদিক উৎপল দাস এখনো ঘরে না ফেরা, এবং সন্ধান না পাওয়ায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভূমিকা লজ্জার।

মা-বাবা ও পরিবারের কাছে সন্তান না ফিরে আসা শুধু উদ্বেবেগের নয় এটি ভয়ের বিষয়। সাংবাদিক ঊৎপল দাসকে উদ্ধারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কতটা সক্রিয়। র্দীর্ঘ সময় ধরে নিখোঁজ সাংবাদিক ও সহযোদ্ধা আমাদের মাঝে ফিরে না আসা প্রতিটা মুহুর্ত আমাদের উৎকন্ঠার।

পুলিশ কি সাংবাদিক উৎপল দাসকে অক্ষত উদ্ধারে সক্ষম হবে? প্রাণবন্ত ও প্রাণচঞ্চল সাংবাদিক উৎপল দাসকে ফেরত পেতে আরো কত দিন অপেক্ষা করতে হবে। তাকে প্রাণবন্ত অক্ষত অবস্থায় ফেরত পাব কি?

সাংবাদিক উৎপল দাস দিনের আলোয় অন্ধকারে নিখোঁজ হয়ে যাওয়া আমাদের গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য সংশয়ের বিষয়। আমরা উৎপল দাসকে অক্ষত ও প্রাণবন্ত আগের মতো পাশে পাব তো? না কি আবারো দুঃসংবাদে কোন সহযোদ্ধা হারানোর বেদনায় মর্মাহত হবো। কি ছিল সাংবাদিক উৎপল দাস নিখোঁজ হওয়ার পেছনে রহস্য। হঠাৎ উৎপল দাসের ফোন থেকে পরিবারের কাছে এক লক্ষ্য টাকা মুক্তিপণ দাবির রহস্য কি?

সব রহস্যের জাল ভেদ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পারবে কি আমাদের প্রাণচঞ্চল মানুষটাকে অক্ষত ফিরিয়ে দিতে। সন্তান কাছে না পাওয়ার আকুতি কত দ্রুত পরিসমাপ্তি পাবে উৎপল দাসের মা বাবার। সর্বেোপরি, সাংবাদিক ঊৎপল দাস আমাদের কাছে ফিরে আসুক দ্রুত- এই প্রার্থনা সৃষ্টিকর্তার কাছে।